বাংলাদেশের কাছে ৩-১ গোলে হা’রের ফলে সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয় করা হয়’নি নেপালের। নেপালের প্রথম নারী সাফের শিরোপা জয়ের স্বপ্ন মুখ থু’বড়ে পড়লো আরও একবার।

 

আরও একবার হতাশা স’ঙ্গী হল হিমালয় কন্যাদের। তাদের এই হারের দায় নিজের কাঁ’ধে নিয়েছেন দলের কোচ কুমার থাপা। ফাইনালের পর কোচের পদ থেকে পদত্যা’গ করেছেন তিনি।

 

ফাইনালের পর পদত্যা’গ করে বসেন নেপাল নারী ফুটবল দলের কোচ। প’দ ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে থাপা বলেন, ‘আমি নেপাল জাতীয় নারী দলের কো’চের পদ ছেড়ে দিচ্ছি। সাফল্য না পেলে এখানে তার এই পদ আঁক’ড়ে ধরে রাখা মোটেও উচিত নয়। ’

 

ফাইনালের আগে বাংলাদেশকে যথে’ষ্ট সমীহের চোখে দেখছিলেন নেপালি এই কোচ। নিজ দলের চেয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে রেখেছিলেন থাপা। তবে মনের কোণে যে শি’রোপার আশাটা ছিল না, বিষয়টা মোটেও তেমন নয়।

 

ঘরের মাঠে খেলা, স্বাগ’তিক দর্শ’কদের সামনে শিরোপার স্ব’প্ন কার না থাকে? থাপারও ছিল। তবে শিরোপা স্ব’প্ন ভে’ঙ্গে যাওয়ার পর নিজেকে আর দায়িত্বে দেখতে চাইলেন না থাপা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.