নেদারল্যান্ডসে আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার মেলায় যোগ দিতে যাওয়ার জন্য ভিসা পেয়েও কাতার এয়ারওয়েজের অ’সহযোগিতায় যেতে না পারায় বিমান সংস্থাটির বিরু’দ্ধে মা’মলা করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত কৃষি উদ্যোক্তা সোহেল রানা। গত ৩১ আগস্ট ঢাকা জেলা জজ কোর্টে এই মাম’লা করেন তিনি।

 

এছাড়া বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে অভি’যোগও জানিয়েছেন তিনি। তার অভি’যোগ আমলে নিয়ে গত ৫ সেপ্টেম্বর একটি তদ’ন্ত কমিটিও গঠন করেছে মন্ত্রণালয়। এক সদস্যের এই তদ’ন্ত কমিটির প্রধান হলেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আহমেদ জামিল। তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যে উভয়প’ক্ষের শুনানিও শেষ করেছে।

 

এদিকে কাতার এয়ারওয়েজের বি’রু’দ্ধে ক্ষ’তিপূরণ দা’বি করে হাইকোর্টে রি’ট দা’য়ের করেছেন সোহেল রানা। সোহেল রানার করা অভিযো’গের বিষয়ে কাতার এয়ারওয়েজের বিরু’দ্ধে তদ’ন্ত করে ব্যবস্থা নিতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে চিঠি দিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়।

 

এ বিষয়ে সোহেল রানা জানান, ‘সরকারি আদেশ (জিও) অ’মান্য করে আমার স’ঙ্গে কাতার এয়ারওয়েজের ন্য’ক্কারজ’নক ঘটনার বি’চার ও ক্ষ’তিপূরণ চেয়ে আমি কাতার এয়ারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর সাতদিন সময় দিয়ে ই-মেইল করেছি। মেইল রিসিভ করে কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ অভি’যোগের প্রেক্ষিতে একটি কেইস নম্বর (সিএএস-২০৫২৯৭২-ওয়াই৭বি১জি৯) দিয়েছিল।

 

কিন্তু এখন পর্যন্ত তারা আমার অভিযো’গের বিষয়ে কোনো সুরাহা করেনি। উপায় না পেয়ে আমি কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষকে আইনি নোটিশ পাঠাই। পাশাপাশি কাতার এয়ারের ঢাকা ও হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর অফিসে চিঠি দিয়েছি। এছাড়া ভিসা ইস্যুকারি সুইডেন দূতা’বাসকে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ভিসা যাচাইয়ের জন্য মেইল করেছিলাম। সেখান থেকে এক মেইলের মাধ্যমে তারা জানিয়েছে যে আমার ভিসা জেনুইন এবং এটি তারা আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কেও অবহি’ত করেছে।’

 

বিষয়টি কৃষি মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকেও জানানো হয়েছে বলে জানান সোহেল রানা। তিনি বলেন, ‘আমার নেদারল্যান্ডস ভ্রমণ সংক্রান্ত সব ডকু’মেন্টস ইমিগ্রেশনে সঠিক প্র’মাণিত হওয়ার পরেও কাতার এয়ারের মিথ্যা অভিযোগে বিমানে ওঠার আগে আমাকে অ’পমা’ন করে অফলো’ড করা হয়েছে। দূতাবাসের ই-মেইল প্রমাণ করেছে তাদের অ’ভিযোগ সম্পূ’র্ণভাবে মি’থ্যা ও বা’নোয়া’ট। এই ঘটনায় কাতার এয়ারওয়েজ রা’ষ্ট্রের ও আমার স’ম্মানহা’নি করেছে।

 

এছাড়া তারা আমার ব্যবসায়িক ক্ষ’তি করেছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে স’ন্তোষজনক জবাব না পাওয়ায় আমি কাতার এয়ারের বি’রু’দ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছি। এদিকে সোহেল রানার করা অভিযো’গের তদ’ন্তের বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান ও বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আহমেদ জামিলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে তদ’ন্ত করা হচ্ছে। এরইমধ্যে উভয়প’ক্ষের শুনানিও করা হয়েছে। যথাসময়ে তদ’ন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হবে।’ তদ’ন্তাধীন কোনো বিষয়ে এর বেশি কিছু জানাতে চাননি তিনি।

 

উল্লেখ্য, নেদারল্যান্ডসে আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার মে’লায় যাওয়ার জন্য ভিসা পেয়েছিলেন জাতীয় যুব পুরস্কারপ্রাপ্ত নওগাঁর সাপাহারের কৃষি উদ্যোক্তা সোহেল রানা। তবে কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষের অসহযো’গিতা ও এ’কগুঁ’য়েমির কারণে নেদারল্যান্ডসে যাওয়া হয়নি তার।

 

এদিকে সোহেলের ভিসা জা’ল ছিল না বলে নিশ্চিত করেছে ঢাকাস্থ সুইডেন দূতাবাস। গত ১৪ আগস্ট সুইডেন দূতাবাস থেকে পাঠানো এক ই-মেইল বার্তায় সোহেল রানার ভিসা সঠিক ছিল বলে নিশ্চিত করা হয়। এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠিও দেয় তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.