মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে হু’ন্ডির মাধ্যমে টাকা পাচার চক্রের ৬ সদস্যকে আ’টক করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। এসময় বাংলাদেশের ১৫ পাসপোর্ট, মালয় রিংগিত ৪৪ হাজার ও অ’বৈধ লেনদেনের নথিপত্র জ’ব্দ করেছে।

১৮ ও ১৯ আগস্ট দেশটির অভিবাসন বিভাগের ধারাবাহিক বিশেষ অভি’যানে বাংলাদেশিদের দ্বারা পরিচালিত একটি মানি লন্ডারিং সি’ন্ডিকে’টকে আট’ক করতে সক্ষ’ম হয়। প্রাপ্ত রেমিটেন্স রেকর্ডের উপর ভিত্তি করে, সি’ন্ডিকেটটি প্রতি মাসে RM 1.2 মিলিয়ন পর্যন্ত রেমিটেন্স করতে স’ক্ষম।

প্রাপ্ত পাসপোর্টের সংখ্যার ভিত্তিতে বিদেশি শ্রমিকদের এজেন্ট বলেও স’ন্দেহ করা হচ্ছে এই সি’ন্ডিকেটকে। আট’ককৃত সকলেই অভিবাসন আইন 1959/63, ইমিগ্রেশন রেগুলেশন 1963 এবং পাসপোর্ট আইন 1966 এর অধীনে অপ’রাধ করেছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে, এমনটা জানিয়েছেন অভিবাসন বিভাগের পরিচালক।

একই আইনের অধীনে মাম’লাটি তদ’ন্ত করা হচ্ছে বলে এক বিবৃ’তিতে জানানো হয়েছে। উল্লেখ্য, পরবর্তী পদক্ষে’পের জন্য তাদের সেমেনিহ ইমিগ্রেশন ডিটেনশন ডিপো, সেলাঙ্গরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.