সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নি’জের ওজন নিয়ে প্রায়ই বু’লিং’য়ের শি’কার হতে হয় বলে জানিয়েছেন দীঘি। আগে বিষয়টিকে পা’ত্তা না দিলেও সম্প্র’তি মুখ খুলেছেন তিনি। তরুণ প্র’জন্মের নায়িকা দীঘি।

 

শিশুশিল্পী হিসেবে একসময় ব্যা’পক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন তিনি। এরপর গত বছর ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমার মাধ্যমে নায়িকা হিসেবে অভি’ষেক ঘটে তার।

 

সম্প্রতি নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটা’সে এই তারকা লেখেন, ‘আমার ওজন নিয়ে সবাই খুব চি’ন্তিত! আসলে তারা ভু’লেই গেছেন আমি একজন অভিনয়শিল্পী, যার কাজ মূলত অভি’নয় করা, জিম প্রশি’ক্ষক না।’

 

তার এই বক্ত’ব্যকে অনেকেই ইতিবা’চক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। এসবে কান না দিয়ে নিজের কাজে মনোযোগ দিতে পরাম’র্শ দিয়েছেন অনেকে। দীঘি তার ওই ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ‘অনেক দিন ধ’রেই শুনছিলাম, আমি ফি’টনেস সচে’তন না। তবে আমি সেটা করার জন্য আমার সর্বো’চ্চ চেষ্টা করছি।

 

কিন্তু তারপরও কিছু মা’নুষ আছে, যারা কানের সামনে এসে এগুলো বলে খুব পৈ’শা’চিক আন’ন্দ পায়। এই যে ক’টূ কথাগুলো বলে একজনকে ছোট ক’রাটা-এই জিনিসটা আমার একদমই পছন্দ না। তিনি আরো বলেন, ‘একজন অভিনেত্রীকে সবার আগে তার কাজ দিয়ে মূ’ল্যায়ন করা উচিত।

 

যেহেতু আমি একজন অভিনেত্রী, তাই আমার প্রথম কাজ’টাই হচ্ছে অভিনয় করা। বাকি যা আছে আছে, সেটা পরে দেখবেন। যদি আমাকে আপ’নাদের যাচাই করতেই হয়, অভিনয় পারি কি না, সেটা দিয়ে করুন।’ শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় পুরস্কা’র পাওয়া এই তারকা অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘অনেকটা সময় চুপ’ থেকে মনে হলো বিষয়টা সবাই সহ’জভাবে নিচ্ছে না।

 

তাই ভাবলাম, স্ট্যাটাস দিয়ে দেখি কী হয়। কারণ, এই বিষয়টি সবারই বোঝা উচিত পৃথিবী এখন আগের থেকে অনেকটাই এগিয়ে গেছে। আমরা যদি এখনও আগের চিন্তা-ভাবনাতেই পরে থাকি যে, নায়িকা মানে স্লি’ম ফি’গার, নায়িকা মানে জিরো ফিগার, তাছাড়া নায়িকা হবে না। এই জিনিসটা থেকে বের হওয়া উচিত।’

 

প্রসঙ্গত, ‘তুমি আছো তুমি নেই’ এবং ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’ সিনেমার পর কিছুদিন আগে ‘শেষ চিঠি’ নামের একটি’ ও’য়েব ফিল্মের মাধ্যমে তার অভিষেক ঘটেছে ওটিটি প্লাটফ’র্মে। যেখানে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন নায়ক ইয়াশ রোহান। এতেও বেশ প্রশংসা কু’ড়িয়েছেন দীঘি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.