কোনো ধরনের অ্যা’ফিডেভিট ছা’ড়াই সংশোধন করা যাবে পাসপোর্টের নামের বানানের ভু’লসহ বেশ কয়েকটি তথ্য। সম্প্রতি বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর থেকে এবিষয়ে একটি বি’জ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের দায়ি’ম্বশীলরা।

 

অধিদপ্তর জানায়, আগে পাসপোর্টে নামের এ’কাংশের ভু’ল বা বানান ভু’লের জন্য হলফনামার (অ্যাফিডেভিট) প্রয়োজন হতো। তবে বর্তমানে শি’ক্ষাগত সনদের কপি দিলেই এই পরিবর্তন করা সম্ভব। অধিদপ্তরের জা’রি করা আদেশ অনুযায়ী, কোনো ব্যক্তি তার পাসপোর্টের নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম এবং বয়স পরিবর্তন করতে পারবেন।

 

এজন্য তাকে পাসপোর্ট সংশোধ’নের আবেদনের সঙ্গে জেএসসি/জেডিসি/এসএসসি বা সমমানের শিক্ষা সনদের কপি জমা দিতে হবে। সেই সনদের হু’বুহু পাসপোর্টের তথ্য আপডেট করা হবে।

 

অধিদ’প্তর জানায়, নামের বানান সংশোধ’ন ছাড়াও কারো পাসপোর্টে যদি নাম ‘মোহাম্মদ‘ বা ‘মোসাম্মৎ’ থাকে এবং তিনি যদি সনদের মতো করে পাসপোর্টে ‘এমডি’ (MD) বা ‘এমওএসটি’ (MOST) করতে চান সেক্ষে’ত্রে হল’ফনামা ছাড়া পরিবর্তন করা যাবে।

 

কারও নামের প্রথম অংশ ও দ্বিতীয় অংশ যদি বদ’ল করার প্রয়োজন হয় (যেমন, রহমান মাসুম থেকে মাসুম রহমান) সেক্ষে’ত্রে তিনি শিক্ষা সনদ দেখিয়েই তা করতে পারবেন।

 

পাশাপাশি বা’দ দেওয়া যাবে পাসপোর্টে মিস্টার, মিসেস, ড./ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ারের মতো উপাধিগুলো। অধিদপ্তর জানায়, কেউ যদি নামের দুই অংশ পরিবর্তন করতে চায় সেক্ষে’ত্রে তাকে অবশ্যই হলফনামার কপি জমা দিতে হবে।

 

যেমন কারও পাসপোর্টের নাম যদি ‘নূর আলী’ হয় তিনি যদি তার নাম ‘মোহাম্মদ নূর হোসেন’ হিসেবে পরিবর্তন করতে চান সেক্ষে’ত্রে প্রয়োজন হবে হলফনামার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *