সাগরে গিয়েছিলেন ইলিশ মাছ ধ’রবেন সেই আশায়, কিন্তু জেলের মন ভ’রে গেলে অন্য একটি মাছ পেয়েই। পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার তেলিখালী ইউনিয়নের উত্তর জুনিয়া গ্রামের জেলে বাদল মাঝির জা’লে আট’কা পরে দুষ্প্রাপ্য একটি ‘ভোল’ মাছ। যার বৈজ্ঞা’নিক নাম ‘প্রোটোনিবিয়া ডায়াকানথুস’।

 

গতকাল সোমবার গভীর সমুদ্রে জা’লে আট’কা পড়া ৩২ কেজি ৭০০ গ্রাম ওজনের দুষ্প্রাপ্য মাছটির দাম ৩ কোটি টাকা চাইছেন বলে জানিয়েছেন বাদল মাঝি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভান্ডারিয়ার চরখালী ফেরিঘাটে তিনি সমুদ্র থেকে ট্র’লার নিয়ে ফিরেছেন।

 

সরেজ’মিনে ভান্ডারিয়ার চরখালী ফেরিঘাটে ট্রলার মালিক ও জেলে বাদল আ’জকের প’ত্রিকাকে বলেন, ‘মাছটি ৩২ কেজি ৭০০ গ্রাম ওজন হয়েছে। আজ আমি পিরোজপুরের পাড়ের হাট মৎ’স্য আড়তেই রয়েছি। মাছটির দাম তিন কোটি টাকা চা’ইব।’ তবে পাড়ের হাট মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জোমাদ্দার বলেন, ‘এই মুহূর্তে এর দা’ম কত আমরা বলতে পারব না।’

 

বাদল মাঝির পা’রিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ধা’র-দে’নায় পড়েছেন তিনি। এ দিকে এই প্র’জাতির মাছ সম্পর্কে খোঁ’জ নিয়ে জানা যায়, ভোল মাছ হলো এক প্রকার ওষ’ধি মাছ। এই মাছ একদিকে যেমন ওষু’ধ হিসেবে কাজ করে তেমনি খেতেও খুব সুস্বাদু। ভোল মাছের পুরো শ’রীরই ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

 

ভোল মাছের পট’কা থেকে কি’ডনি রো’গ নিরা’ময়ের ও’ষুধ তৈরি করা হয়। এই ওষু’ধ দিয়ে কি’ডনির কার্যকারিতা বজায় রাখা হয়। কিড’নির পা’থর নিরসনে ব্যবহৃত হয় ভোল মাছের পট’কায় থাকা রস। ভোল মাছের হৃদয় মানুষের শরীরের রো’গ প্রতিরোধ ক্ষ’মতা বাড়ায়। ভোল মাছের হৃ’দয়ে রয়েছে অ্যান্টি অ’ক্সিডে’ন্টসহ নানাবিধ পুষ্টি উপাদান।

 

এটি রো’গাক্রা’ন্ত ব্যক্তির জন্য পুষ্টিকর খাবার হিসেবে বিশ্বব্যাপী বিবেচিত। তাই এ মাছের হৃদয়কে সোনার হৃ’দয়ও বলা হয়। ভোল মাছের শরীর নানা পু’ষ্টি উপাদান ও খনিজ পদার্থে ভরপুর। এই মাছের শরীর থেকেই এমন বিশেষ ধরনের সু’তো তৈরি হয় যা দিয়ে মা’নবদে’হে’ সেলাই করলে ঘা শুকানোর পর সুতো শরীরের স’ঙ্গে মিশে যায়।

 

এই ভোল মাছ থেকে দামি ম’দ তৈরি করা হয়। সর্বোপরি ওষু’ধ তৈরিতেই এই মাছ সব থেকে বেশি ব্য’বহৃত হয়। তাই বিশ্বের নামী দামি ওষু’ধ কোম্পানির কাছে এই মাছের রয়েছে বিশেষ চাহিদা। কিন্তু এই মাছ সমুদ্রে খুব সহজে পাওয়া যায় না। বলা চলে, এটি একটি দুর্ল’ভ মাছ। সে কারণে এই মাছের দামও বেশি।

 

স্ত্রী ভোল মাছের চেয়ে পুরুষ ভোল মাছের দাম আরও বেশি হয়। ভোল মাছ মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া এই দেশগুলোর মানুষের কাছে অনেক পছ’ন্দনীয় খাবার। বাংলাদেশের বঙ্গোপসাগরে এই ভোল মাছ মাঝে মধ্যে হঠাৎ করেই অনেক সময় জে’লেদের জা’লে আটকা পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *