কাতার ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপ চলাকালে স্টেডিয়াম, ফ্যান জোন ও বাসস্থানের জায়গাগুলোতে আগত অতিথি ও দর্শকদের জন্য ১০০টিরও বেশি চিকিৎসা ক্লি’নিক থাকবে।

 

টুর্নামেন্ট চলাকালে হামাদ মেডিকেল কর্পোরেশনের বিভিন্ন হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে দর্শকদেরকে জ’রুরি চিকিৎসা সেবা বিনামূ’ল্যে দেওয়া হবে।

 

কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার যৌথ অংশীদারিত্বে ‘স্পোর্টস ফর হেলথ’ নামক উদ্যোগের অংশ হিসাবে এই সি’দ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিশ্বকাপ চলাকালে ১০০টিরও বেশি চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র হওয়ার পেছনে পাঁচটি কারণ উ’ল্লেখ করেছে কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এই পাঁচটি কারণের অন্যতম একটি হলো কাতারে সবার জন্য নি’রাপদ ও স্বাস্থ্যকর বিশ্বকাপ আয়োজন। এছাড়াও বাকি চারটি কারণের মধ্যে রয়েছে: কাতারে সবার জন্য একটি বিশ্বমানের অ্যাম্বুলেন্স সেবা ও হাসপাতাল ব্যবস্থা গড়ে তোলা।

 

সং’ক্রাম’ক রো’গ, খাদ্য নিরাপ’ত্তা ও আরও বিভিন্ন বিষয়ে ব্যা’পক ঝুঁ’কি নিরসনের কৌশল ঠিক করা। জাতীয় অনুষ্ঠান ভিত্তিক নজরদারি ব্যবস্থা জো’রদার করা। স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য বিশে’ষজ্ঞরা হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করার ব্যবস্থা সহজ করা।

 

কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, বিশ্বকাপের ম্যাচ চলাকালে প্রত্যেকটি স্টেডিয়ামে স্বাস্থ্যসেবা দল থাকবে। বিশ্বকাপের আটটি স্টেডিয়াম হলো: লুসাইল স্টেডিয়াম, আল বায়ত স্টেডিয়াম, খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম, ৯৭৪ স্টেডিয়াম, আল থুমামা স্টেডিয়াম, এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম, আহমদ বিন আলী স্টেডিয়াম এবং আল জানুব স্টেডিয়াম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *