শোবিজ অ’ঙ্গনে কয়েকদিন আগেও আলোচনা ছিল মু’ক্তি পাওয়া সিনেমাগুলো নিয়ে। ‘পরাণ’, ‘দিন: দ্য ডে’ ও ‘হাওয়া’য় মে’তে ছিলেন দর্শ’করা। কিন্তু সম্প্রতি আলোচনায় শাকিব-বুবলী আর পূজা চে’রি। বিয়ে, বি’চ্ছেদ আর নতুন প্রে’মের গু’ঞ্জন হয়ে ঘুরে-ফিরে আসছে তাদের নাম।

 

স’ঙ্গে আছে নির্মাতা রায়হান রাফি ও চিত্রনায়িকা তমা মির্জার নামটিও। তাই ঢা’লিউডপা’ড়ায় কি হচ্ছে, এমন প্রশ্ন এখন অনেকের মুখে মু’খে। স’ম্প্রতি গু’ঞ্জ’ন ওঠে, ৮ মাস আগেই চিত্রনায়ক শাকিব খানের স’ঙ্গে বি’চ্ছে’দ হয়ে’ছে নায়িকা শবনম বুবলীর। যদিও এ বিষয়ে বুবলীর স্প’ষ্ট বক্তব্য, বি’চ্ছে’দের বিষয়টি সত্য নয়। এটা গু’ঞ্জন আর এগুলো উদ্দেশ্যপ্র’ণোদিতভাবে কেউ ছ’ড়াচ্ছে।

 

শাকিব-বুবলী বি’চ্ছেদের গু’ঞ্জনের মধ্যে মাথা চা’ড়া দিয়ে উ’ঠেছে পূজা চেরির বিয়ের খবর! গত মাসের ২২ তারিখ বিয়ে করেছেন শাকিব ও পূজা। শুধু তাই নয়, বিয়ের পর পূজা ধ’র্মান্ত’রিতও হয়েছেন। যদিও বিষ’য়টি নিয়ে শাকিব-পূজার কোনো ম’ন্তব্য পাওয়া যায়নি। আর তাদের কাছে মানুষরাও বিষয়টি নি’শ্চিত করে কিছু জানাতে পারেননি। তারপরও এখন ট’ক অব দ্য কা’ন্ট্রিতে পরিণত হয়েছে তাদের বি’য়ের খবর!

 

এ বিষয়ে দৈ’নিক আ’মাদে’র সম’য় অনলাইন’র প’ক্ষ থেকে যো’গাযো’গ করা হয় এই দুই তারকার স’ঙ্গে। কিন্তু শাকিব-পূজাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। তাদের ম’ন্তব্য পাওয়া না গেলেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন পূজা চেরি মা ঝর্ণা রায়। তার ভা’ষ্য, ‘দয়া করে আমার মেয়েটাকে বাঁ’চতে দিন।

 

মানুষজন যেভাবে ওকে নিয়ে সং’বাদ প্রকাশ করছে, তাতে করে ওর মান’সিক অব’স্থা খুব খারা’প। আমার মেয়েটা ছোট, সারাক্ষণ শুধু কা’ন্না করছে। আমরা তাকে সা’রাক্ষণ বোঝানোর চেষ্টা করছি কিন্তু কোনো লাভ হচ্ছে না। কো’নোভাবেই ওর মন ভালো করতে পারছি না। এসব কথার কারণে পরিবা’রের অন্যরাও ভালো নেই।’

 

ঝর্ণা রায় আরও বলেন, ‘পূজা মান’সিকভাবে ভে’ঙে পড়েছেন। যে কোনো সময় একটা দু’র্ঘট’না ঘটাতে পারে- আমরা এই ভ’য়েই আছি। আমি মা হয়ে সারাক্ষণ ওর পাশে আছি। বিশ্বাস করেন, প্রে’ম-বিয়ে এগুলো সব মি’থ্যা। মানুষ এভাবে মি’থ্যা কথা বলে কি মজা পা’চ্ছে। এসব সংবাদের কার’ণে আমাদের কি অবস্থা- কেউ কি একবার চি’ন্তা করেছেন।

 

তাই সবার কাছে হাতজো’ড় করে বলি- আমার মেয়েটা ছোট, দয়া করে মেয়েটাকে বাঁ’চতে দেন। সবশেষে পূজার মা বলেন, ‘পূজা মান’সিকভাবে ভে’ঙে পড়েছে। ওকে এখন একা রাখতেও আমাদের ভ’য় লাগে। কখন কি করে বসে! দয়া করে আমার মে’য়েটাকে নিয়ে এসব বা’জে কথা লিখবেন না। মা হয়ে আমি সবাইকে অনুরো’ধ করছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *