কাতারের অপেক্ষা বাকি ৩৫ দিন, দোহার দালানকোঠায় ভাসছে ফুটবলারদের ছবি

বিশ্বকাপ উ’ন্মাদ’নায় মে’তে ওঠার অপেক্ষায় কাতার। ফুটবল বিশ্বকাপের ৯২ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো মুস’লিম দেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবল। এ উপল’ক্ষে কাতারের রাজধানী দোহা সেজেছে নতুন সাজে।

 

দেশটির বড় ইমা’রত ও দালানকোঠায় শো’ভা পাচ্ছে বিশ্বের তারকা ফুটবলারদের ছবি। ফুটবল বিশ্বকাপ সামনে রেখে এমন আয়োজন দেখে উচ্ছ্ব’সিত প্রবাসী বাংলাদেশিরা। আর মাত্র কয়েক দিনের অপে’ক্ষা।

 

ইতিহাসের সা’ক্ষী প্রস্তুত কাতারের প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তারা বলছেন, ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপের আ’মেজ কাতারে শুরু হয়ে গেছে। ফুটবল তারকাদের বড় বড় ছবি দেখা যাচ্ছে। অ’সংখ্য লোকজন সেগুলো দেখতে আসছেন। এ আমেজ সত্যিই খুব আনন্দের।

 

শুধু এক ফুটবল বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে দেশটির ব্যা’পক অবকাঠা’মো উন্নয়ন হয়েছে। নি’র্মাণ করা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন ৮টি স্টেডিয়াম। ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনে কোনো কিছুর কমতি রাখেনি আয়োজক দেশটি।

 

আগামী ২০ নভেম্বর কাতার বনাম ইকুয়ে’ডর ম্যাচের মধ্যে দিয়ে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের। এদিকে কাতারে বিশ্বকাপের অবকাঠামো নির্মাণকালে আহ’ত অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য ক্ষ’তিপূরণ তহ’বিল চালু করছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সং’স্থা ফিফা।

 

ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত কাতারের শ্রমিক অধিকারবিষয়ক ইউরোপীয় এক কাউন্সিলে ফিফার সহসা’ধারণ সম্পাদক আলাসদাইর বেল বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বিশ্বকাপ শুরুর দুই মাসেরও কম সময় বাকি থাকতে ফিফার এমন ঘোষণা নিঃস’ন্দেহে ইতিবাচক প্র’ভাব ফেলবে বলে আশা সংশ্লিষ্টদের।

 

আলাসদাইর বেল বলেন, বিশ্বকাপের কাজ করার সময় যারাই চো’ট পেয়েছেন, তাদের দেখভা’ল করাটা গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাপারটা এত সহজ নয়। আমাদের এটা নিয়ে আরও ভাবতে হবে। এ জন্য কা’ঠামো, নিয়ম ও অনুশাসন ইত্যাদির প্রয়োজন। এটা এমন একটা বিষয় যেটা এগিয়ে নিয়ে কাজ করতে আমরা আগ্রহী।

 

২০১০ এ মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি বিশ্বকাপ আয়োজনের দা’য়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই আ’লোচনার কেন্দ্রবি’ন্দুতে চলে আসে মানবাধিকারের বিষয়টি। ঠিকভাবে শ্রমিকদের পা’রিশ্রমিক না দেয়া এবং হ’তাহ’তের সংখ্যা কম দেখানোর মতো অ’ভিযো’গের মুখোমুখিও হতে হয়েছে আয়োজক কাতারকে।

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *