বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সৌদি আরবের জেদ্দা ও মদিনা রুটের ৭৫ হাজার টাকার টিকিট বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ১ লাখ ৩৬ হাজার থেকে ১ লাখ ৮০ হাজার টাকায়। পবিত্র উমরাহ হজের যাত্রীর চা’প বেড়ে যাওয়ায় অ’গ্রিম বুকিং দেখিয়ে এই দুই রুটের সেপ্টেম্বর মাসের সব টিকিট আ’টকে ফেলেছে দেশের কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্সি। আর তাদের জন্য সেই পথ করে দিয়েছেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

অনুস’ন্ধানে জানা গেছে, আগামী মাসে (সেপ্টেম্বর) সৌদি আরবের উমরাহগামী যাত্রীদের বেশ চা’প রয়েছে। উমরাহ যাত্রীরা মূলত জেদ্দা ও মদিনা রুট ব্যবহার করে সৌদি আরবে প্রবেশ করেন। এই সুযোগে বিমানের কর্মকর্তারা কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্সিকে এই দুই রুটের ইকোনমি ক্লাসের প্রায় ২২ শ’ টিকিট ‘গ্রুপ বুকিং’ করার সুযোগ দিয়েছে।

ফলে সেপ্টেম্বরে টিকিটের কৃ’ত্রিম সং’কট তৈরি হয়েছে। এতে ওই রুটে বিমানের ৭৫ হাজার টাকার ভা’ড়া গিয়ে ঠেকেছে প্রায় দেড় লাখে। অনুস’ন্ধানে আরও জানা গেছে, বর্তমানে বিমানের টিকিট কা’টার জন্য নির্দিষ্ট যাত্রীর নাম ও পাসপোর্ট নম্বর প্রয়োজন হলেও বিমান কর্মকর্তাদের যোগসাজশে ৫টি ট্রাভেল এজে’ন্সি কোনো যাত্রীর নাম, পাসপোর্ট নম্বর বা অন্য কোনো কাগজপত্র জমা না দিয়েই জেদ্দা ও মদিনা রুটের গ্রুপ টিকিট কে’টে নিয়েছে।

বুধবার (২৪ আগস্ট) বিমানের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে দেখা গেছে, ঢাকা থেকে জেদ্দা ও মদিনা রুটের সেপ্টেম্বর মাসের ইকোনমি ক্লাসের কোনো টিকিট নে’ই। কেউ যদি সেপ্টেম্বরে বিমানের টিকিটে জেদ্দা রুটে যেতে চায় সেক্ষেত্রে তার ভাড়া পড়বে ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ ৯৯ হাজার টাকা পর্যন্ত।

আর মদিনা রুটের বর্তমান ভাড়া ১ লাখ ৩৬ হাজার থেকে ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা। অথচ আগস্টে এ ভাড়া ছিল ৭২ থেকে ৭৫ হাজার টাকা। বর্তমানে বিভিন্ন এজেন্সি সর্বনিম্ন দেড় লাখ টাকায় ১৫ দিনের ওমরাহ প্যাকেজ ঘোষণা করলেও সেপ্টেম্বরে এই প্যাকেজ ২ লাখের বেশি পড়বে।

এদিকে পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি আরব যেতে টিকিটের দাম বেশি রাখা হচ্ছে, এ খবরটি সঠিক নয় বলে দা’বি করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বি’বৃতিতে এ দা’বি করে সংস্থাটি।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার সাক্ষরিত এক বিবৃ’তিতে বলা হয়, সম্প্রতি কয়েকটি প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ায় খবর প্রকাশিত হয়েছে যে, আগামী সেপ্টেম্বর মাসের বিমানের টি’কিটের জন্য বেশি ভাড়া রাখা হচ্ছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ওমরাহ যাত্রীদের জন্য বিমানের ভাড়া স্তরভে’দে ৭৫০ ডলার হতে ৯০০ ডলার। নাম ও তথ্য ছাড়া কোনো টিকিট দেয়া হয়নি এবং নিয়মানুযায়ী বিমানের সেলস সেন্টার থেকেই টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। পাশাপাশি অনুমোদিত ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমেও টিকিট বিক্রি অব্যাহ’ত আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.