ফুটবল বিশ্বকাপ শু’রুর বাকি আর এক মাসও নেই। তার আগে নানা চ্যা’লেঞ্জ সা’মলা’তে হচ্ছে জনপ্রিয় এ ম’হায’জ্ঞের আয়োজক দেশ কাতারকে। দেশটির অ’স্বস্তি বা’ড়াচ্ছে মানবাধিকার র’ক্ষা সংক্রা’ন্ত পরিসংখ্যান। আর এবার সরব অস্ট্রেলিয়া।

 

কাতারে এল’জিবিটিকি’উ সম্প্র’দায়ের ব্যক্তি থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের নানাভাবে অ’ত্যাচা’র ও হে’নস্তা’র ঘটনা বার বার সামনে আসছে। বিশ্বকাপের আগে সেই প্রস’ঙ্গেই সরব হচ্ছেন বিভিন্ন দেশের ফুটবলাররা।

 

অস্ট্রেলি’য়া ফুটবল দলের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) নিজের অফিসিয়াল সোশ্যাল মি’ডিয়া হ্যা’ন্ডলে একটি ভি’ডিও পো’স্ট করা হয়েছে। এতে বিশ্বকাপ ফুটবল ঘিরে মানবাধিকার র’ক্ষার বিষয়টিকে গু’রুত্ব দেয়া হয়েছে।

 

অস্ট্রেলিয়ার গোলকি’পার ম্যাট রায়ান বলেন, ফুটবলের স’ঙ্গে জ’ড়িয়ে রয়েছে বিশ্বজনীন মূল্যবো’ধ। যখন আমরা দেশের প্রতিনিধিত্ব করি, তখন আমরা পারস্প’রিক শ্রদ্ধা, সম্মান, বিশ্বাস ও সাহ’সকে গুরুত্ব দিয়ে মেনে চলি।

 

মানবা’ধিকার লঙ্ঘ’নের প্র’তিবাদ করে আরেক অস্ট্রেলীয় ফুটবলার বলেন, আমরা জানতে পেরেছি কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজনের ফলে অ’সংখ্য সাধারণ শ্রমিককে দু’র্দশা ও ক্ষ’তির মু’খে পড়তে হয়েছে। ফুটবল অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে এ’লজি’বিটিকি’উ সম্প্র’দায়ের ব্য’ক্তিদের নিরাপ’ত্তা নিয়ে সংশ’য় প্রকাশ করা হয়েছে।

 

আর এ বিষয়ে উপযুক্ত পদক্ষে’পের নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। যদিও কাতারের প’ক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছে, বিশ্বকাপে এ’লজিবি’টিকিউসহ সব ভ’ক্তরাই স্বাগত। তবে তাদের কাতারের র’ক্ষণশীল সংস্কৃ’তি মেনে চলতে হবে।

 

এই পরিস্থিতিতে ফুটবল অস্ট্রেলিয়া বিবৃ’তিতে জানিয়েছে, আমরা বিশ্বাস করি সবাই যাতে নি’রাপ’দ বোধ করেন তেমন ব্যবস্থা থাকা উচিত কাতারের। আমির থেকে ফিফা প্রেসিডেন্ট যেভাবে এল’জি’বিটি’কিউ সম্প্রদায়ের ভ’ক্তদের নিরাপ’ত্তা দেয়ার আ’শ্বাস দিয়েছেন, তা বিশ্বকাপ চলাকালীন মেনে চলা হবে বলে প্র’ত্যাশিত।

 

কাতারে পরিযায়ী শ্রমিক ও ল’জি’বিটিকি’উ সম্প্রদায়ের নিরাপ’ত্তাহী’নতার প্রশ্নে এর আগেও সরব হয়েছে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী বেশ কয়েকটি দেশ। এ ছাড়া বিশ্বকাপের সময় হা’জির থাকবেন না বলে জানান প্রিন্স উইলিয়ামও। বিশ্বকাপের আগামী ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপ, চলবে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *