গতকাল পাকিস্তানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ওপর নৃ’শং’স হাম’লা’র ঘটনা ঘটেছে। এতে ইমরানের দল পিটিআ’ইয়ের এক রাজনৈতিক কর্মী নি’হত হয়েছেন। এ সময় ইমরান ছাড়াও তার দুই সহযোগীসহ আরও ১০ জন আহ’ত হয়েছেন। পাকিস্তা’নের সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, হাম’লাকারী যেভাবে গু’লি চালায় তাতে ইমরান খানের নি’শ্চিত মৃ’ত্যু হতে পারতো।

 

তবে এক্ষে’ত্রে বা’ধা হয়ে দাঁড়ায় ৩০ বছরের এক যুবক। হাম’লাকারী যখন পি’স্তল থেকে গু’লি চালায় ঠিক সে সময়েই তার পেছনে ছিলেন ওই যুবক। হাম’লাকা’রী যে মুুহূ’র্তে গু’লি চালায় ঠিক তখনই পি’স্তল ধ’রা হাতটি টেনে নেন ওই যুবক। এতে হাম’লাকারী পরপর ছয়টি গু’লি ছু’ড়লেও ইমরানের বু’কে লাগার ব’দলে পায়ে লাগে।

 

এতে মা’রাত্ম’ক আহ’ত হলেও প্রাণে বেঁ’চে যান ইমরান। এই দৃশ্য পু’রোটি ধরা পড়ে ওই ঘটনাস্থলে থাকা সি’সিটি’ভি ক্যা’মেরায়। এতে দেখা গেছে, পরনে লাল-সাদা-নীল একটি টি-শার্ট পরা যুবক ব’ন্দুক হাতে হাম’লাকারীর হাত নামিয়ে তাকে জ’ড়িয়ে ধরার চেষ্টা করছেন।

 

এদিকে ওই যুবকের এমন সাহ’সী পদক্ষে’পে ইমরান খান বেঁ’চে যাওয়ার দৃ’শ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভা’ইরা’ল হয়েছে। পাকিস্তানের নাগরিকরা ওই যুবককে প্র’শংসায় ভাসিয়েছেন। সেই সঙ্গে ওই যুবকের ছ’বি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শে’য়ার করে ক্যা’পশনে লিখছেন ‘‘হ্যাশট্যাগ আওয়ার হিরো’’।

 

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে সাহ’সী ওই যুবকের নাম যুবক ইবতিসাম। এদিকে হাম’লাকারী যুবক তাৎক্ষণিকভাবে ইমরানকে গু’লি করে হ’ত্যাচে’ষ্টার ঘটনায় স্বী’কারো’ক্তি দিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুই’টারে ছড়িয়ে পড়া ভি’ডিওতে দেখা গেছে, ওই হাম’লাকারী বলছেন, লোকজন ইমরান খানকে নিয়ে বা’জে কথা বলে তাকে ভু’ল বুঝিয়েছে।

 

এই কারণে ইমরানকে হ’ত্যা করতে চেয়েছিলেন তিনি। এ সময় ওই যুবক আরও বলেন, ‘লংমার্চ লাহোর ছে’ড়ে যাওয়ার পর থেকেই আমি তাকে হ’ত্যার পরিক’ল্পনা করি। তাকে হ’ত্যা করার জন্য আমি সবটু’কু চে’ষ্টা চালিয়েছি।’

 

পুলিশ অপর এক হাম’লাকা’রীকে হ’ত্যার দা’বি করলেও গ্রে’ফতার ওই ব্যক্তি দা’বি করেছেন, তার সঙ্গে অন্য কেউ ছিল না। তিনি একাই ইমরানকে হ’ত্যা করতে চেয়েছিলেন।

 

এদিকে পাকিস্তানে আগাম নির্বাচনের দা’বিতে লাহোর থেকে রাজধানী ইসলামাবাদের উ’দ্দেশে লংমার্চ শুরু করেন ইমরান খান। লংমার্চে কনটেইনার ব্যবহার করে বিশেষ গা’ড়ি তৈরি করা হয়। এই গাড়িতে ছিলেন ইমরান খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *