উ’গ্র সমর্থক কিংবা অ’বৈধ কোনো সংগঠনের স’ঙ্গে জ’ড়িত, খাবার খেয়ে বিল না দেয়া এমন ৬ হাজার ব্য’ক্তির তালি’কা প্রস্তুত করেছে আর্জেন্টিনার বুয়ে’ন্স আয়ার্স কর্তৃপক্ষ। যাদেরকে কাতার বিশ্বকাপে গিয়ে খেলা দেখার ওপর নি’ষেধা’জ্ঞা জা’রি করেছে আর্জেন্টিনা কর্তৃপ’ক্ষ।

 

যে ৬ হাজার ব্য’ক্তির তালিকা তৈরি করা হয়েছে, অতীতের এদের নামে স্টেডিয়ামে গিয়ে ধ্বং’সাত্ম’ক কর্মকা’ণ্ডে জড়িত থাকা, নি’ষি’দ্ধ সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত কিংবা রেস্টুরেন্টে খাবার খেয়ে বিল না দিয়ে চলে আসার অভি’যোগ রয়েছে। বুয়েন্স আয়ার্স সিটি কর্তৃপক্ষ সোমবার জানিয়েছে এসব তথ্য।

 

বুয়েন্স আয়ার্স সিটির জাস্টিস অ্যান্ড সি’কিউরি’টি মিনিস্টার মার্সেলো ডি আলেসান্দ্রো স্থানীয় একটি রে’ডিও স্টেশনকে বলেন, ‘যে ব্যক্তি এখানে স’ন্ত্রা’সী কাজ করতে পারে, সে কাতারে গিয়েও করবে। আমরা চাই ফুটবলে শা’ন্তি ফিরিয়ে আনতে। এ কারণে চাই হিং’স্র স’মর্থ’কদের মাঠের বাইরে রাখতে।’

 

তালিকাকৃ’ত ব্যক্তিদের পরিচয় তুলে ধরে বুয়ে’ন্স আয়ার্সের এই কর্তাব্যক্তি বলেন, ‘বারাস (হিং’স্র সম’র্থক) নামে একটি সংগ’ঠনের সঙ্গে যু’ক্ত তারা। যারা সব সমই খেলার মাঠে তথা স্টেডিয়ামে গিয়ে ধ্বং’সাত্ম’ক কর্মকা’ণ্ডের স’ঙ্গে জ’ড়িত। এছাড়া তারা ট্রা’পিটোস (আর্জেন্টিনায় নি’ষি’দ্ধ একটি ব্যব’সা) এবং বকেয়া বি’লের স’ঙ্গে জ’ড়িত তারা।

 

কাতার বিশ্বকাপ পরিচালনা কমিটির কর্মকর্তারা আগে থেকেই বলে আসছিলেন, ‘বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দেশ থেকে পুলিশ সদ’স্যের একটি দল পাঠানো হবে যারা কাতারে এসে স্থানীয় পুলিশের স’ঙ্গে আই’ন-শৃ’ঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করবে।’

 

গত জুন মাসেই কাতার দুতাবাসের সঙ্গে আর্জেন্টিনার ন্যাশনাল সিকিউ’রিটি মন্ত্রণালয় একটি সমঝো’তা চু’ক্তি সা’ক্ষর করে। যেটার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে, আর্জেন্টাইন উ’গ্র সম’র্থকদের বিশ্বকাপে গিয়ে খেলা দেখা থেকে বি’রত রাখার ব্যবস্থা করা।

 

এ কারণেই মূলতঃ ৬ হাজার আর্জেন্টাইন সম’র্থককে নি’ষি’দ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে কাতার স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা থেকে। ডি আলেসান্দ্রো বলেন, ‘প্রায় তিন হাজারের মত বারাব্রাভা’র (লাতিন আমেরিকার ফুটবল সমর্থক গ্রুপ) সমর্থককে এমনিতেই স্থানীয় লিগের ম্যাচে পর্যন্ত অনুমতি দেয়া হয় না স্টেডিয়ামে গিয়ে খেলা দেখার জন্য।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *