কাপড় শুকানোর কথা বলে চাবি নিয়ে বাসার ছাদে যান সানজানা

রাজধানীর দক্ষিণখানে ১০ তলা ভবনের ছা’দ থেকে লা’ফিয়ে পড়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী আ’ত্মহ’ত্যা’ করেছেন। গতকাল শনিবার দুপুরে মোল্লারটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার ম’রদে’হ উ’দ্ধার করে পুলিশ। ওই সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি সু’ইসা’ইড নোটও উ’দ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আ’ত্মহ’ত্যা’র আগে সু’ইসা’ইড নোটে ওই ছাত্রী তার বাবাকে ‘রে’পি’স্ট’ ও ‘অ’মানুষ’ বলে উল্লেখ করেছেন। নি’হত শিক্ষার্থীর নাম সানজানা (২১)। তিনি বেসরকারি ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে ইংরেজি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ১০ তলা ভবন থেকে লা’ফিয়ে প’ড়ে গু’রুত’র আ’হত হন সানজানা।

এরপর তাকে উ’দ্ধার করে রাজধানীর প’ঙ্গু হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় চিকিৎসক সানজানাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন। এরপর সন্ধ্যায় পুলিশ তার লা’শ উ’দ্ধা’র করে দক্ষিণখান থানায় নিয়ে যায়। বিষয়টি নিশ্চিত করে দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুনুর রহমান জানান, শনিবার দুপুরের দিকে কাপড় শু’কানোর কথা বলে বাসার সিকিউরিটি গার্ডের কাছ থেকে চা’বি নিয়ে ছাদে যান ওই শিক্ষার্থী। পরে ১০ তলা ভবন থেকে লাফিয়ে আ’ত্মহ’ত্যা করেন।

তিনি আরও বলেন, সানজানার বাবা গাড়ি ভাড়া দেওয়ার (রেন্ট–এ কার) ব্যবসা করেন। পরিবারের খরচ দিতে হি’মশি’ম খাওয়ায় স্ত্রীর সঙ্গে প্রায়ই ঝগ’ড়াঝাঁ’টি হতো তার। মেয়ের বিশ্ববিদ্যালয়ের সেমিস্টার ফি দিতে পারছিলেন না তিনি।

বাবার প্রতি রা’গ ক্ষো’ভ থেকে সানজানা আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। লা’শ ময়’নাতদ’ন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ম’র্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *