মাঠে খেলা দেখাবেন কাতার প্রবাসী মাসুদুর, করেছেন বিনামূল্যে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা

বিশ্বকাপ ফুটবলের উ’ত্তাপ-উ’ত্তেজনা বাড়াতে ফরিদপুরের পৌর শহরের একটি মাঠে তৈরি হচ্ছে আটটি প্রতী’কী স্টেডিয়াম। কাতারের উন্নত মানের আট স্টেডিয়া’মের আদলেই তৈরি হচ্ছে এগুলো।

 

মাঠের সীমানার চারদিকে স্থা’পন করা হয়েছে ৩২টি দলের পতাকা। একই সঙ্গে বিশ্বকাপের সব খেলাই দে’খানো মাঠটিতে। দূর-দূরান্ত থেকে খেলা দেখতে আসা দর্শনার্থীদের জন্য থাকবে বি’নামূল্যে থাকা ও খাওয়ার ব্য’বস্থা।

 

ব্যতিক্রমী এ উদ্যো’গ নিয়েছেন পৌর সদরের ভাজনডা’ঙ্গা এলাকার বাসিন্দা ও কাতার প্রবাসী মো. মাসুদুর রহমান। খোঁ’জ নিয়ে জানা গেছে, কাতারে থাকা অবস্থায় স্টেডিয়ামগুলোতে গিয়ে খেলা দেখেছেন মাসুদুর রহমান।

 

বিশ্বকাপকে কে’ন্দ্র করে তিনি নিজস্ব অ’র্থায়নে প্রতীকী স্টেডিয়াম তৈরি উদ্যোগ নিয়েছেন। পাশাপাশি সমর্থকদের জন্য খেলার দেখার ব্যবস্থাও করেছেন। স্থানীয় বা’সিন্দা এস এম রুবেল বলেন, যদিও এখনো কাজ চলমান। তবে সত্যিই খুব বি’স্ময় লাগছে।

 

এমন ব্যতিক্রমী আয়োজন মনে হয় দেশের মধ্যে সেরা। কাতারের আটটি স্টেডিয়ামের প্রতী’কী তৈরি হচ্ছে। এলাকায় এরই মধ্যে বেশ সা’ড়া পড়েছে। মাসুদুর রহমান বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে কাতারে থাকি। এ সু’বাদে বিভিন্ন সময় কাতারের ফুটবল স্টেডিয়ামগুলো স্বচ’ক্ষে দেখার সুযোগ হয়েছে। আমি আর্জেন্টিনার ভ’ক্ত।

 

প্রিয় খেলোয়াড় মেসি। আর্জেন্টিনা ও মেসির প্রতি ভালোবাসা এবং ভিন্নধ’র্মী কিছু করার চিন্তা থেকেই আমার এমন আয়োজন। এখানে আটটি মাঠ কাতারের স্টেডিয়ামের আদলে তৈরি করা হচ্ছে। এছাড়া খেলা দেখতে আসা দর্শনার্থীদের থাকার ব্যবস্থা হচ্ছে। কাজ চলমান। কাজ শেষে বি’স্তারিত বলা যাবে।

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *