কাতার আসার সময় ৯০০ কেজি করে মাংস নিয়ে এসেছে মেসিরা

বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে ঘরোয়া খাবারের স্বাদ পেতে ৯০০ কেজি করে মাংস নিয়ে কাতার গিয়েছে আর্জেন্টিনা ও উরুগু’য়ে ফুটবল দল। কাতারে প্রায় এক মাস অব’স্থান করতে হবে দলগুলোকে।

 

আর এ সময় যেন খেলোয়াড়েরা খাবার নিয়ে কোনো সম’স্যায় না পড়ে সেজন্য এমন উদ্যো’গ নিয়েছে মেসি ও সুয়ারেজের দেশ। সর্বোৎকৃ’ষ্ট পুষ্টি সরবরাহের লক্ষ্যে বিশ্বের সেরা মাং’স নিয়েই বিশ্বকাপে গেছে উরুগুয়ে, এমনটাই জানালেন এইউএফ প্রেসিডেন্ট ইগনাসিও আলোনসো।

 

তিনি বলেন, ‘সর্বোৎকৃ’ষ্ট পুষ্টি পাবে জাতীয় দল। আমাদের দেশের ঐতিহাসিক প্রতিনিধি’ত্ব করে এইউএফ। এবার তারা আরেক প্রতিনিধি উরুগুয়ান মাংস, যেটা বিশ্বের সেরা মাংস, সেটা নিয়ে গেছে।’

 

দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলো মাংস উৎপাদনের জন্য সারা বিশ্বজুড়েই বিখ্যা’ত। একই সাথে তারা মাংসের বড় ভো’ক্তাও। দেশ দুটিতে আসাডো সবচেয়ে জনপ্রিয় খাবার হিসেবে বি’বেচিত।

 

আসাডো মূলত মাং’স বড় বড় করে কেটে সসেজ ও গ্রি’ল করে রান্না করা হয়। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি এ প্রস’ঙ্গে বলেন, ‘মাংস ভা’জা আমার পছন্দের খাবার। এটা আমাদের সংস্কৃতির একটা অংশ।’

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *