ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানি, ইতালি বা স্পেন নয় এরা সবাই এশিয়ার দেশ কাতারের সাপো’র্টার। তাই কাতারের সাফল্য কামনায় করলেন ব্য’তিক্র’মী এক আয়োজনে। প্রায় ৫০০ ফুট লম্বা কাতারের জাতীয় পতাকা নিয়ে বর্ণা’ঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনার আয়োজন করেন একটি গ্রামের কাতার প্রবাসীরা।

 

শনিবার (১৯ নভেম্বর) চাঁদপুরের শাহরা’স্তির উপজেলা চিতৈশি পশ্চিম ইউনিয়নের উঘারিয়া গ্রামের কাতার প্রবাসীদের উদ্যো’গে প্রিয় দল কাতারের সাফল্য কামনায় ওই আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশের অধিকাংশ ফুটবল প্রে’মী ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার হলেও চাঁদপুরের অধিকাংশ রেমিট্যা’ন্স যো’দ্ধারা কাতার প্রবাসী।

 

আর কাতারের এমন সহযো’গিতার কারণেই ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা বা অন্য দল ছাড়া কাতারের সা’পোর্ট করছে তারা। আর ব্যতিক্রমী এমন আয়োজনে এ’কাত্ম’তা পোষণ করে অংশগ্রহণ করেন এলাকার ছোট-বড় ব’য়োজ্যে’ষ্ঠ মানুষ।

 

উঘারিয়া গ্রামের মহসিন দেওয়ান, ইদ্রিস দেওয়ান, আরমান হোসেন, ফারুক, ও জাহাঙ্গীর আলম নয়নসহ বেশ কয়েকজন জানান, মূলত কাতারকে ভালো লা’গার কারণ হচ্ছে আমাদের গ্রামের অধিকাংশ মানুষই কাতার প্রবাসী।

 

কাতার মুস’লিম কা’ন্ট্রি হিসেবে নয়, সেখানে আমাদের গ্রামের শত শত মানুষ চা’করি করে জীবিকা নি’র্বাহ করছে এবং দেশের রেমিটে’ন্স অর্জন হচ্ছে। ফুটবল বিশ্বকাপ হচ্ছে কাতারে এবং কাতারের নি’জস্ব দল রয়েছে। তাই ব্রাজিল কিংবা আর্জেন্টিনা নয় আমরা কাতারকে সাপো’র্ট করছি। আশা করছে, কাতার খুব ভালো খেলোয়ার আমাদেরকে উপহার দিবে।

 

কাতার প্রবাসী এবং পতাকা নিয়ে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনার অর্জনকারী জাহিদুল ইসলাম ও খায়ের উদ্দিন সুমন বলেন আমরা যে আয়োজন করেছি, এখানে আসা স্থা’নীয়দের মধ্যে। কাতারে অনেকের পরিবারের সদস্যই রয়েছেন। যাদের পাঠানো টাকা দিয়ে চলে তাদের সং’সার।

 

আমরা যারা কাতারপ্রবাসী রয়েছি আমাদের উ’দ্যোগেই এই আয়োজন করেছি। আমরা কাতারকে ভালোবাসি, কাতার সরকার আমাদেরকে অনেক সুযোগ-সুবি’ধা দিচ্ছে। কাতারকে উইশ করার জন্যই এই ব্যতিক্র’মী আয়োজন।

 

প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়া কাতারের উ’ত্তরো’ত্তর সাফল্য কামনায় আমরা ব্রাজিল আর্জে’ন্টিনা ছেড়ে এ বছর কাতারের সাপোর্টার। এতে ভবি’ষ্যতে বাংলাদেশ কাতারের সুস’ম্পর্ক আরও দৃঢ় করার প্রত্যয় ব্য’ক্ত করে তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *