লিওনেল মেসির গোলের পর বা’তিল হলো আর্জেন্টিনার ৩ গোল। ২১ মিনিটে ফে’র গোল করেছিলেন মেসি। কিন্তু অফসাই’ডের কারণে বাতিল হয়ে যায় সে গোল। পরে লাউতারো মার্টিনেজের দুই গোলও অফসা’ইডের কারণে বা’তিল করে দেন রেফারি।

 

এদিন ম্যাচের শু’রু থেকেই আ’ক্রম’ণা’ত্মক ফুটবল খেলতে থাকে আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয় মিনিটেই ডি-ব’ক্সের জট’লা ঠেলে মেসির কিক ফেরান গো’লর’ক্ষক। ষষ্ঠ মিনিটে ডি পলকে ফুল করলে ফ্রি কিক পায় আর্জেন্টিনা।

 

ফ্রি কিকে ডি-ব’ক্সে আর্জেন্টিনার একজনকে ফে’লে দিলে পে’না’ল্টি দেয় রে’ফারি। পে’না’ল্টি থেকে গোল করেন মেসি। সৌদি আরবের বিপ’ক্ষে এই প্রথম গোল পেলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক। গ্রিন ফ্যালকনদের বিপ’ক্ষে আগেও এক ম্যাচ খেললে সেবার গোল পান’নি মেসি। দ্বিতীয় দেখায় গো’ল করে মে’টালেন আক্ষে’প।

 

২০ মিনিটের সময় ডি বক্সের বাইরে থেকে উ’ড়িয়ে মারেন পাপু গোমেজ। ২১ মিনিটে ল’ম্বা করে বাড়ানো বল খুঁ’জে পায় মেসিকে। অর’ক্ষিত মেসি গোলর’ক্ষককে একা পেয়ে গোলও করেন। কিন্তু রেফারি অফসা’ইডের বাঁ’শি বাজান।

 

২৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বি’গুণ করেন লাউতারো মার্টিনেজ। সৌদি র’ক্ষণের ফাঁক খুঁজে নিয়ে অরক্ষি’ত লাউতারো খুঁজে নেন বল। একা গোলর’ক্ষককে ফাঁ’কি দিতে খুব বেশি ক’ষ্ট হয়নি তার।

 

তবে গোলটি রেফা’রি ভিএআর দেখে অফসাই’ডের কারণে বা’তিল করে দেন। ৩৫ মিনিটে বা’তিল হয় লাউতারো মার্টিনেজের আরও এক গোল। এবারো বা’ধ সাধে অফসাইড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *