চট্টগ্রামের রাউজানের সন্তান সাজ্জাদ হোসেন (২২)। ৬ বছর ধরে ওমানপ্রবাসী। তিনদিন আগে পরিবারকে আগাম জানান না দিয়েই দেশে চলে আসেন। এমনকি স’ঙ্গে প্রয়োজনীয় কাপড়ও নিয়ে আসেনি। আসার কারণ জানার চেয়ে তাকে পেয়ে খুশী ছিলেন বাড়িতে মা আর পরিবারের সবাই। কিন্তু তাদের সেই আনন্দ বেশিদিন স্থা’য়ী হয়নি।

সকালে কাপড় কিনতে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে বিকেলে লা’শ হয়ে ফিরে তাদের প্রিয় সাজ্জাদ। সব মায়া ছেড়ে চলে গেছে না ফেরার দেশে। রোববার (২৮ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়কের বাইন্যা পুকুরপাড়ে সড়কে দু’ঘর্ট’নার শি’কার হয়ে অ’কালে ঝরে যায় এই রেমিট্যান্সেযোদ্ধা প্রবাসী বাংলাদেশি যুবক।

স্থানীয়রা জানান, মোটরসাইকেল করে সাজ্জাদ ও তার ফুফাতো ভাই মিরাজ পৌর এলাকার বাইন্যা পুকুরপাড় হয়ে রাউজান সদরের দিকে যাচ্ছিলেন। কাপড় কিনতে স্থানীয় ফকিরহাটের দিকে রওনা হয়েছিলেন তারা। পথে দ্রুতগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে সাজ্জাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সং’ঘ’র্ষ হয়।

ঘটনাস্থল থেকে গু’রুত’র আহ’ত অবস্থায় দুইজনকে উ’দ্ধার করে দ্রুত গহিরা জে কে হসপিটালে নেয়া হয়। হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক সাজ্জাদকে মৃ’ত ঘোষণা করে। দু’র্ঘট’নার পরপরই দ্রুত পালিয়ে যায় ঘাতক ট্রাকচালক। তবে, হাইওয়ে পুলিশ ট্রাকটি জ’ব্দ করেছে।

আ’হত মিরাজকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহ’ত সাজ্জাদ রাউজান উপজেলার ৭নং সদর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মিয়াজান মাঝির বাড়ির ম’রহুম আব্দুস সালামের ছেলে। অন্যদিকে আ’হত মিরাজ একই ইউনিয়নের পূর্ব রাউজান এলাকার মো. মনছুরের ছেলে।

রাউজান হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল আজম বলেন, ম’রদে’হের সুরতহা’ল সম্পন্ন হয়েছে। নিহ’তের পরিবার ময়নাতদ’ন্ত করতে চাচ্ছেন না। তাই ম’রদেহ তাদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.