পেছন থেকে লোকজন চিৎকার করলেও গাড়ি থামাননি জাফর শাহ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কে’ন্দ্রীয় মসজিদ এলাকায় শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে ম’র্মা’ন্তিক সড়’ক দু’র্ঘট’নায় রুবিনা আক্তার (৪৫) নামে এক নারী নিহ’ত হন।

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শি’ক্ষক আজাহার জাফর শাহের প্রাইভেটকারের নিচে চা’পা পড়ে মা’রা যান তিনি। প্রত্য’ক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রুবিনা আক্তার তার দেবর নূরুল আমিনের (৪০) বা’ইকে করে যাচ্ছিলেন। প্রাইভেটকার চা’লক পেছন থেকে তাদের ধা’ক্কা দেন।

 

এ সময় ওই নারী প্রাইভেটকারের নিচে চা’পা প’ড়েন এবং তার পোশাক বা’ম্পারে জ’ড়িয়ে তিনি গাড়ির নিচে আ’টকা পড়েন। তাকে ঝু’লিয়ে নিয়ে চালক নীলক্ষে’তের দিকে যেতে থাকেন।

 

এ সময় নুরুল আমিন নিজেকে সা’মলে উঠে দাঁ’ড়িয়ে দেখেন তার ভা’বি গাড়ির নিচে এবং বে’পরো’য়া গতিতে ছু’টে চলেছে গাড়িটি। এ অবস্থা দেখে তিনি গাড়ির পেছনে ছু’টতে থাকেন। একপর্যায়ে টিএসসি এলাকায় থাকা লোকজন গা’ড়িটির পিছু নিয়ে থামানোর জন্য চি’ৎকার করতে থাকেন।

 

এরপরও চালক জাফর শাহ গাড়ি থামাননি। এক কি’লোমিটার গাড়ি চালিয়ে নী’লক্ষে’ত মোড় ঘুরে পলাশী অ’ভিমু’খী যাওয়ার সময় জন’তা তাকে আ’টক করেন। পরে গাড়ির নিচ থেকে মু’মূ’র্ষু অবস্থায় উ’দ্ধার করে ওই নারীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

 

এ সময় জনতা গাড়ির চাল’ককে গ’ণপি’টুনি দিয়ে মা’রাত্ম’ক আ’হত করেন এবং গাড়িতে ব্যাপক ভা’ঙচু’র করেন। একপর্যায়ে পুলিশ এসে জন’তাকে নি’য়ন্ত্র’ণ করে এবং চালককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহাবাগ থানার ওসি নুর মোহাম্মদ বলেন, আহ’ত নারী মা’রা গেছেন। চালক ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন আছেন। গাড়িটি জ’ব্দ করা হয়েছে।

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *