১৭ দিনে কাতার এসেছে প্রায় ৮ লাখ মানুষ, বাড়তে শুরু করেছে মরক্কোর দর্শক

প্রথমবার আরবের কোনও দেশে ফুটবল বিশ্বকাপ। খোল’নলচে পাল্টে ফেলা হয়েছে কাতারের চেহা’রা। ধারণা করা হয়েছিল, বিদেশি দর্শকরা উপ’চে পড়বে সেখানে। কিন্তু প্রথম দুই সপ্তাহের হিসাব শেষে হতা’শ হতে হলো আয়োজকদের।

 

টুর্নামেন্টে আয়োজন করা সুপ্রিম কমিটি ফর ডেলিভারি অ্যান্ড লিগ্যাসি (এসসি) বুধবার একটি রিপো’র্ট প্রকাশ করেছে। তারা বলেছে, বিশ্বকাপের প্রথম ১৭ দিনে কাতারে পা রেখেছে ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৮৫৯ জন আন্তর্জাতিক দর্শক, যার মধ্যে অর্ধে’কের বেশি চলে গেছে।

 

তাদের প্রত্যা’শা ছিল ১২ লাখ দর্শকের আ’গমন ঘ’টবে। ২০ নভেম্বর শুরু হওয়া বিশ্বকাপ শেষ হবে ১৮ ডিসেম্বর। বাকি দিনগুলোতে যে দর্শকের ঢে’উ বাড়বে, এমনটা মনে করা বো’কামি। কারণ টিকে আছে আর আ’টটি দল এবং ম্যাচ আছে শুধু ৮টি।

 

যদিও ইতিহাস গড়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা মর’ক্কোর দর্শক বা’ড়তে শুরু করেছে। দেশটি থেকে বিশেষ ফ্লাইটে আগমন ঘটছে মরক্কানদের। এসসি’র রিপোর্টে নিবন্ধন হয়েছে ১৩ লাখ ৩০ হাজার ম্যাচ টিকিটহোল্ডার ও টিকিট বিক্রি হয়েছে ৩০ লাখ ৯০ হাজার।

 

নাম প্রকাশে অনি’চ্ছুক একজন কাতারি কর্মকর্তা এই সংখ্যা জানিয়েছেন। নথিপত্রে বলা হয়েছে, প্রথম ৫২ ম্যাচে স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন মোট সাড়ে ২৬ লাখ দর্শক। দর্শক সং’খ্যা বাড়াতে কিছু কিছু জায়গায় ছাড় দিয়েছে আয়োজকরা।

 

দেশটিতে ভ্র’মণে গালফ করপোরেশন কাউন্সিল সদস্য দেশগুলোর দর্শকদের জন্য এখন থেকে আর হায়া কার্ডধারী হওয়া বা’ধ্যতামূলক নয়।

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *