নিজের কিড’নি বি’ক্রি করে দ্বিতীয় স্ত্রীকে তিন লাখ টাকা দিয়েছিলেন স্বামী আতাউর রহমান (৪০)। সেই টাকা হা’তিয়ে নিয়ে আতাউরের দ্বিতীয় স্ত্রী’ও গো’পনে আরেকটি বিয়ে করেছেন। এমন খবর শুনে অ’ভিমা’নে বি’ষপা’ন করে আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন তিনি।

 

বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা উপজেলা সদরের লাঙ্গলঝাড়া গ্রামে এ আ’ত্মহ’ত্যা’র ঘটনা ঘটে। নিহ’ত আতাউর রহমান উপজেলার আইচপাড়া গ্রামের প্রয়াত লতিফ সরদারের ছেলে। আতাউরের মা জাহানারা খাতুন জানান, উপজেলার মুরারীকাটি গ্রামের আয়ুব আলীর মেয়ে মমতাজ খাতুনকে বি’য়ে করে আতাউর।

 

তাদের দুটি ক’ন্যা সন্তান আছে। পরে গোপনে লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে রুবিনা খাতুনকে দ্বিতীয় বিয়ে করে আতাউর। তিনি জানান, দ্বিতীয় বিয়ের পর ভারতে গিয়ে একটি কিড’নি বি’ক্রি করে তিন লাখ টাকা স্ত্রী রুবিনাকে দেয় আতাউর। পরে ওই টাকা পেয়ে রুবিনা আতাউরকে তা’লাক’ দিয়ে অন্য একজকে গো’পনে বিয়ে করে।

 

এই খবর শোনার পর আতাউর বি’ষ খে’য়ে আ’ত্মহ’ত্যা করে। আতাউরের শাশুড়ি মর্জিনা খাতুন বলেন, তার মেয়ে জামাই অন্য স্থা’ন থেকে বি’ষ খে’য়ে বাড়ির উঠানে এসে পড়ে। তাকে উ’দ্ধার করে কলারোয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে মা’রা যান।

 

কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসিরউদ্দীন মৃধা বলেন, কি’ডনি বি’ক্রি করে ওই টাকা দিয়েছিলেন দ্বিতীয় স্ত্রী রুবিনাকে। পরে রুবিনা অন্য একজনকে বিয়ে করায় অ’ভিমা’নে আ’ত্মহ’ত্যা করে আতাউর। এ ঘটনায় থানায় একটি অ’পমৃ’ত্যুর মাম’লা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.