গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ খ্যা’ত ফুটবল বিশ্বকাপ শুরু হতে বাকি এখনো ৭৭ দিন। এবারের আসরটি প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কাতারে। কাতার মুসলিম দেশ হওয়ায় অনেক বি’ধি নিষে’ধের মধ্যে থাকতে হবে বিশ্বকাপ দেখতে আসা দর্শকদের। তার মধ্যে একটি হচ্ছে খোলামেলা জায়গায় ম’দ, বি’য়ার এগুলো কেউ খেতে পারবে না।

 

কেননা দেশটিতে ম’দ বিয়ার এগুলো খাওয়া নি’ষেধ। তবে বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে এ বিধিনি’ষেধ শি’থিল করতে পারে দেশটি। শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স টুর্নামেন্ট পরিকল্পনাকারীদের বরাত দিয়ে এমন একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। যেখানে বলা হয়েছে, ম্যাচ শুরুর তিন ঘণ্টা আগে বি’য়ার কিনতে পারবেন সমর্থকরা। তবে তারাই কিনতে পারবেন যাদের কাছে ম্যাচের টি’কিট থাকবে। তবে ম্যাচ চলাকালে এমন সুযোগ থাকবে না।

 

কাতার বিশ্বকাপের অন্যতম প্রধান স্প’ন্সর প্রতিষ্ঠান বুডওয়েজার। যাদের টুর্নামেন্ট চলাকালে বি’য়ার বি’ক্রির অধিকার রয়েছে। সেই সূত্র বলছে, এ প্রতিষ্ঠানটি প্রতিটি স্টেডিয়ামের চারপাশে টিকিটের আওতায় থাকা এলাকায় ‘বি’য়ার পরিবেশন করবে। তবে স্টেডিয়াম স্ট্যান্ডে এমন সুযোগ থাকছে না। সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলে, গেট খোলার সময় বি’য়ার পাওয়া যাবে, যা কি’ক অফ হওয়ার তিন ঘণ্টা আগে।

 

যে কেউ চাইলে বিয়ার নিতে পারবে। তারপর চূড়ান্ত বাঁ’শি বা’জানোর পর স্টেডিয়াম ছেড়ে যাওয়ার সময় এক ঘণ্টার জন্য তারা এ সুযোগ পাবে। এছাড়া বুডওয়েজারকে ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া ২৯ দিনের টুর্নামেন্টের প্রতিদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে রাত ১টা পর্যন্ত দোহার প্রধান ফিফা ফ্যান জোনের অংশে বি’য়ার পরিবেশন করার অনুমতি দেয়া হবে।

 

আগের বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টগুলোতে ফ্যান জোনে দিনব্যাপী বিয়ার পরিবেশন করা হতো। সূত্র বলছে, এবার ভ’ক্তদের কাছে কোথায় ও কখন বি’য়ার বিক্রি করা হবে সে বিষয়ে সি’দ্ধান্ত ইতোমধ্যেই চূড়ান্ত হয়েছে। তবে এর দাম কেমন ধ’রা হবে সেটি নিয়ে এখনও আলোচনা চলছে।

 

প্রধান স্পন্সর প্রতিষ্ঠান বুডওয়েজার ব্রিউয়ার এবি ইনবেভের একজন মুখপাত্র বলেছেন, আমরা ফিফার স’ঙ্গে ঘনি’ষ্ঠভাবে কাজ করছি, যারা কাতারি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে স’ম্পর্ক পরিচালনা করছে। টুর্নামেন্টের জন্য আমাদের সক্রিয়তাগুলিকে সম্মানের সঙ্গে এবং স্থানীয় নিয়ম ও বিধি মেনে চলা নি’শ্চিত করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.