ঢাকা থেকে বরিশালগামী পা’রাবাত-১২ লঞ্চে যাত্রীদের টাকা চু’রির সময় রিপন নামে একজনকে আ’টক করেছে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ। পরে জানা যায় তিনি হ’ত্যা মা’মলার প’লাত’ক আসা’মি। শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) এমভি পারাবাত-১২ লঞ্চে এ ঘটনা ঘটে। চু’রি করার সময় লঞ্চের সি’সিটিভি নিয়ন্ত্র’ণকারীরা তাকে শনা’ক্ত করে।

 

আট’ক রিপনের বাড়ি পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলার পায়রাগঞ্জে। লঞ্চ কর্তৃপক্ষ জানায়, সিসিটিভি নিয়’ন্ত্রণকারীরা দেখতে পান এক ব্যক্তি যাত্রীদের ব্যা’গ হা’তিয়ে টাকা নিয়ে যাচ্ছেন। এমন সময় লঞ্চের স্টাফরা তাকে আট’ক করে বরিশাল নৌ-পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ভোর ছয়টার সময় নৌ-পুলিশের সদস্যরা রিপনকে আ’টক করেন।

 

এসময় তার সঙ্গে তার স্ত্রী ছিলেন। বরিশাল নৌ পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসানাত জামান বলেন, লঞ্চে চু’রির ঘটনায় রিপন নামের একজনকে থানায় আ’না হয়েছে। তার সঙ্গে তার স্ত্রীও আছে। খোঁ’জ নিয়ে জানতে পেরেছি রিপন পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ থানায় একটি হ’ত্যা মাম’লার প’লাত’ক আসা’মি।

 

তিনি বলেন, লঞ্চে যাদের টাকা চু’রি করেছে তারা অভি’যোগ দিলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবো। নয়তো মির্জাগঞ্জ থানায় সোপর্দ করা হবে। মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেন, হ’ত্যা মা’মলায় রিপন নামের এক আসা’মিকে আমরা খুঁজছি। আজ সেই আসা’মিকে বরিশাল নৌ-পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.