কাতারে অনেকেই নিজ কোম্পানিতে কাজের পাশাপাশি অন্য কোম্পানিতে পার্ট-টাইম কাজ করতে চান। আবার অনেকে নিজ কোম্পানির অধী’নে থেকে অন্য কোম্পানিতে ফুল টাইম কাজ করতে চান।

 

এমন কাজ করতে গেলে নিতে হয় শ্রম মন্ত্রণালয়ের অনুম’তি। সেই অনুমতি এখন সহজে পাওয়া যাবে অনলাইনে। কাতার শ্রম মন্ত্রণালয়ের সব সেবা এখন অনলা’ইনে পাওয়া যাচ্ছে। নতুন করে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ই-সার্ভিসের আরও একটি প্যাকেজ চালু করা হয়েছে।

 

সর্বশেষ প্যাকেজে দুটি ই-সার্ভিস চালু করেছে শ্রম মন্ত্রণালয়। দুটি ই-সার্ভিসের একটি হলো সেকে’ন্ডমেন্ট ওয়ার্ক পারমিটের জন্য আবেদনের সুযোগ। অপরটি হলো সেকেন্ডমেন্ট ওয়ার্ক পারমিট নবায়নের সুযোগ।

 

সেকেন্ডমেন্ট ওয়ার্ক পারমিট কী:  কাতারে কোন কর্মচারী তার মূল কোম্পানির অধীনে থাকা অব’স্থায় অন্য আরেকটি অ’স্থায়ী কোম্পানির অধীনে পার্ট-টাইম বা ফুল-টাইম কাজ করার জন্য ওয়ার্ক পারমিট নেওয়াকে সেকেন্ডমেন্ট ওয়ার্ক পারমিট বলে।

 

শ্রম মন্ত্রণালয়ের ই-সার্ভিস ব্যবহার করে এখন যে কোনো কোম্পানি অন্য কোম্পানির অধীনে থাকা কর্মীর দ্বিতীয় কাজের অনুমতির জন্য আবেদন করতে পারবে। আবেদনের পর বিষয়টি ওই কর্ বর্তমান কোম্পানিকে স্ব’য়ংক্রিয়ভাবে জানানো হবে।

 

আবেদনের সবকিছু সম্পূর্ণ হওয়ার পর একবার অনুমোদিত হলে পারমিটটি লেবার মিনি’স্ট্রি দ্বারা সত্যায়িত করা হবে। এরপর উভয় প’ক্ষকে প্রয়োজনীয় সবকিছু অনলাইনে জানিয়ে দেওয়া হবে। দ্বিতীয় ই-সার্ভিসটি হলো, সেকেন্ডমেন্ট ওয়ার্ক পারমিট রিনিউ করা। সেকেন্ডমেন্ট ওয়ার্ক পারমিটের নবায়ন করার এই পুরো প্রক্রিয়াটি পুরোপুরি ডিজিটাল ও স্ব’য়ংক্রিয়।

 

ফলে যারা একবার অনুমতি নিয়ে অন্য কোম্পানিতে কাজ করছেন, তারা খুব সহজে তা রিনিউ করতে পারবেন। ই-সার্ভিস অথবা কাগজবিহীন সেবা আবেদনকারীর মূল্যবান সময় ও কষ্ট কমিয়ে দেয়। ফলে আবেদনকারীকে ব্যক্তিগতভাবে মন্ত্রণালয়ের অফিসে যাওয়ার প্রয়োজন হয় না।

 

মনে রাখবেন, অনুমতি ছাড়া কাতারে অন্য কোনো কোম্পানিতে কাজ করা অপ’রাধ। এই অপ’রাধে আপনি যদি ধ’রা পড়েন, তবে আপনাকে দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.