‘আমাদের একটি সূর্য নি’ভে গেলো। এমন কোনো দিন নেই তার স’ঙ্গে আমার ফোনে কথা হতো না। একদিন ফোন না দিলেই তিনি ফোন করে আমার খোঁ’জ নিতেন। জানতে চাইতেন আমার শরীর ভালো আছে কিনা। সেই তিনি আজ নেই।’ গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে নিয়ে কথাগুলো বলেই কা’ন্নায় ভে’ঙে পড়লেন মনির খান।

 

রোববার সকালে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের মৃ’ত্যুবরণ করেন দেশেল অসংখ্য কালজয়ী গানের গানের কিংবদ’ন্তি গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার। তার মৃ’ত্যুর খবরে শোক-শ্র’দ্ধা জানতে হাসপতালে ছুটে আসেন শু’ভাকাঙক্ষীসহ শোবিজের বিভিন্ন অ’ঙ্গনের মানুষ। ছুটে আসেন মনির খানও।

 

এ সময় তিনি বলেন, বিশ্ব জানে তাঁর সম্প’র্কে। তাকে নিয়ে নতুন করে বলা’র কিছু নেই। আমি তার সন্তা’নতূল্য ছিলাম। তিনি সবসময বলতেন আমার দুটি ছেলে একটা উ’ৎপল আরেকজন মনির। মনির খান কা’ন্না জ’ড়িতে ক’ণ্ঠে বলেন, ‘তাঁর আদ’র, স্নে’হ, শাস’ন সব কিছু থেকেই আজ থেকে ব’ঞ্চিত হব। তিনি তো আমাদের একটি প্রতিষ্ঠান। এমন একটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে আর আসবে কিনা তা বলা যায় না। আমাদের একটি সূর্য নি’ভে গেলো।’

 

উল্লেখ্য, নন্দিত গীতিকবি গাজী মাজহারুল আনোয়ার ১৯৪৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার দাউদকা’ন্দি থানার তালেশ্বর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাংলা গানের শ্রেষ্ঠতম গীতিকবি হিসেবে পরিচিত তিনি। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে ২০ হাজারের বেশি গান লিখেছেন। রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ সম্মাননাসহ শতাধিক পুর’স্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি। গানের পাশাপাশি চলচ্চিত্র নির্মা’ণ ও চিত্রনাট্য রচনায়ও তার নামটি উজ্জ্বল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.