প্রবাসী নওফেল বাদশা (৩৪)। প্রায় এক যুগ ধরে জীবন-জী’বিকার তাগিদে তিনি মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানে প্রবাস জীবন কা’টাচ্ছিলেন। গত ১০ জুন সামাজিকভাবে বি’বাহবন্ধনে আব’দ্ধ হয়ে জীবিকার তাগিদে গত ১৮ আগস্ট ফের প্রবাসে পাড়ি জমান।

 

কিন্তু ভাগ্যের নির্ম’ম পরিহা’স নিজ কর্মস্থলে (কা’চে আব’দ্ধ) বিদ্যুৎ বি’ভ্রাটের সময় চালু করা জেনারেটরের ধোঁ’য়ায় শ্বা’সরু’দ্ধ হয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান ইলেকট্রনিক পার্টস ব্যবসায়ী নওফেল।

 

গত সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় রাত ৯টার দিকে তিনি মৃ’ত্যুবরণ করেন। নওফেল হাটহাজারী উপজেলার গড়দুয়ারা ইউনিয়নের হালদা নদীপাড়ের মিন্নাত আলী সারাং বাড়ির মোহাম্মদ ফজলুল হকের পুত্র। তিনি তিন ভাইবোনের মধ্যে সবার বড়।

 

বৃহস্পতিবার দুপুরে খবরটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন নওফেলের ছোটভাই মো. নওশাদ। এদিকে নওফেলের মৃ’ত্যুর খবরে তার পরিবার ও এলাকায় শো’কের ছা’য়া নেমে আসে।

 

মাত্র ৩ মাস আগে বিয়ের পিঁড়িতে বসা রাউজান উপজেলার গহিরা ইউনিয়নের নতুনহাট তেঁতুলতলা এলাকার উম্মে ফাতেমার হাতের মেহেদির রং শুকানোর আগেই এমন দু’র্ঘটনা তার নবদাম্পত্য জীবনে সুখের পরি’বর্তে নেমে এসেছে অ’মানিশার ঘো’র অ’ন্ধকার।

 

ঘটনাটি বেশ হৃদ’য়বিদারক জানিয়ে গড়দুয়ারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সরওয়ার মোর্শেদ তালুকদার বলেন, বিয়ের ৩ মাস পর নওফেলের না ফেরার দেশে পাড়ি জ’মানো কোনোমতেই মেনে নেওয়ার নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.