লুসাইল স্টেডিয়াম শুক্রবার জামালেক এবং আল হিলালের মধ্যকার লুসাইল সুপার কাপে ৭৭, ৫৭৫ জন দর্শক উপস্থিত ছিলেন। কাতারের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি দর্শক উপস্থিত হওয়া ফুটবল ম্যাচের রেকর্ড এটি।

 

এর আগে আগের রেকর্ডটি ছিল কাতার বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত গত বছর ফিফা আরব কাপে। সেখানে ৬৩,৪৩৯ জন দর্শক ছিল। এছাড়া কাতারে খেলা দেখতে আসা দর্শকদের রেকর্ডের তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে আল বাইত স্টেডিয়ামের তিউনিসিয়া এবং আলজেরিয়ার ম্যাচটি।

 

সেই ম্যাচটিতে মোট দর্শকদের উপস্থিতি ছিল ৬০, ৪৫৬ জন দর্শক। কাতার ২০২২ বিশ্বকাপের জন্য তৈরি করা স্টেডিয়ামগুলোর মধ্যে লুসাইল স্টেডিয়াম সবচেয়ে বড় এবং আকর্ষণীয়।

 

স্টেডিয়ামটির বিশালতা ও সৌন্দর্যসহ নানা কারণে এটিকে বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ আয়োজনের মঞ্চ হিসাবে নির্বাচন করেছে কর্তৃপক্ষ। স্টেডিয়ামটিতে একসাথে ৮০ হাজার দর্শক খেলা দেখতে পারবেন। বিশালাকার এই স্টেডিয়ামে আজ ৯ সেপ্টেম্বর একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

রাজধানী দোহা থেকে ১৫ কিলোমিটার উত্তরে লুসাইল সিটিতে অবস্থিত এই চোখ ধাঁধানো ভেন্যুটি। বিশ্বকাপ শুরুর পর ২২ নভেম্বর সি গ্রুপের আর্জেন্টিনা বনাম সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়ে এই ভেন্যুতে খেলা শুরু হবে।

 

স্টেডিয়ামটি নির্মাণে খরচ হয়েছে ৭৬৭ মিলিয়ন ডলার, যা বাংলাদেশের মুদ্রায় ৬ হাজার ৬১০ কোটি ৭২ লাখ ১৬ হাজার ১১০ টাকা। রাজধানী দোহা থেকে প্রায় ২২.৭ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত লুসাইল স্টেডিয়াম। গাড়ি ও মেট্রোরেলযোগে স্টেডিয়ামে পৌঁছানো যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.