আজ রবিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত কাতারের তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাবে। এই তাপমাত্রা ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠতে পারে। এমনটাই জানিয়েছে কাতারের আবহাওয়া বিভাগ।

 

আবহাওয়া বিভাগ বিভাগ টুইটারে জানিয়েছে, ভারতীয় বর্ষা গভীর হওয়ার সাথে সাথে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর মধ্যে থাকবে।

 

২০১০ সালের জুলাই মাসে কাতারের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ রেকর্ড ছুঁয়েছিল ৫০.৪ ডিগ্রি। আর সবচেয়ে কম তাপমাত্রা ছিল ২৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই তাপমাত্রা ছিল ১৯৬৯ সালের জুলাই মাসে।

 

কাতারে গ্রীষ্ম মৌসুম মানেই প্রচন্ড গরম। তবে কখনো কখনো উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে বাতাস বয়ে যায়। কাতারে প্রচন্ড গরমের কারণে সব কটি স্টেডিয়াম এয়ারকন্ডিশনড করার পরও বিশ্বকাপ পিছিয়ে নভেম্বরে আনা হয়েছে।

 

সাধারণত কাতারে জুন-জুলাইয়ে তীব্র গরম থাকে। এ জন্য বিশ্বকাপ পিছিয়ে আনা হয়েছে নভেম্বর-ডিসেম্বরে। দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ ফুটবল বিশ্বকাপের উন্মাদনায় ফুটবল প্রেমীদের চোখ এখন আয়োজক দেশ কাতারের দিকে।

 

ফুটবল বিশ্বকাপ মাঠে গড়াতে আর বাকি মাত্র ৭০ দিন। আগামী ১ নভেম্বর থেকে কাতার আসতে পারবেন দর্শকরা। কাতার থাকা যাবে ২০২৩ সালের ২৩ জানুয়ারি পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.