বাসের ভেতরে ঘুমের মধ্যে মারা যাওয়া শিশুর বাড়িতে গেলেন কাতারের শিক্ষামন্ত্রী

কাতারের শিক্ষা ও উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী বুথাইনা বিনতে আলী আল নুয়াইমি বেসরকারি কিন্ডারগার্টেনের ভারতীয় শিক্ষার্থী মিনসা মারিয়াম জ্যাকব স্কুল বাসে মারা যাওয়ার ঘটনায় তার পরিবারের কাছে শোক প্রকাশ করেছেন।

 

আজ সেই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে শোক প্রকাশ করেন কাতারের শিক্ষামন্ত্রী। এসময় তার পরিবারের সাথে কিছু সময় আলোচনা করেন ও বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নেন। দায়িত্বে অবহেলা থাকলে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও আশ্বাস দেন শোকাহত পরিবারকে।

 

গতকাল সকালে কাতারে স্কুল বাসের মধ্যে আটকা পড়ে চার বছরের এক ভারতীয় প্রবাসী কিশোরীর মৃত্যু হয়। মিনসা মারিয়াম জ্যাকব নামের ওই ভারতীয় ছাত্রী ওয়াকরার একটি কিন্ডারগার্টেনে লেখাপড়া করতো।

 

পরিবারের ঘনিষ্ঠরা জানায়, মিনসা মারিয়াম জ্যাকব ওয়াকরার একটি কেজি স্কুলে পড়তো। স্কুলে যাওয়ার পথে বাসের মধ্যেই ঘুমিয়ে পড়ে শিশুটি। বাসের কর্মীরা খেয়াল করেনি অন্য ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে শিশুটি নামেনি।

 

ভেতরে শিশুটির উপস্থিতি টের না পেয়ে তা’লাব’দ্ধ বাসটি খোলা জায়গায় দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। সকাল সাড়ে ১১টায় আবার ডিউটি ​​শুরু করার জন্য বাসে ফিরলেই বাসের কর্মীরা শিশুটিকে ভেতরে দেখতে পান। ততক্ষণে শিশুটি মা’রা গেছে।

 

মিনসাকে তাড়াহুড়ো করে ওয়াকরা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, তবে তাকে বাঁচানো যায়নি। শিশুটির মৃ’ত্যুর সঠিক কারণ এখনো জানা যায়নি। রবিবার কাতার জুড়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেঞ্জের মধ্যে।

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *