আর কিছুদিন পরই কাতারে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আসবেন লাখো দর্শক ও অতিথি। আর তাই কাতারের পরিবেশগত সৌন্দর্য বজায় রাখতে ক’ঠোর হচ্ছে বালাদিয়া কর্তৃপক্ষ।

 

কারণ, কাতারের আইন অনুসারে ফুট’পাত, রাস্তা বা পাবলিক স্থানে টিস্যু, ময়’লা, খালি প্যাকেট অথবা থু’তু ফেলা শা’স্তিযোগ্য অপরা’ধ। টুইটারে এক পোস্টে বিষয়টি সবাইকে স্মরণ করিয়ে দিয়ে সত’র্ক করেছে কাতারের বালাদিয়া মন্ত্রণালয়।

 

এতে বলা হয়, কাতারে পাবলিক হাইজিন আ’ইন ল’ঙ্ঘন করলে অভিযু’ক্ত ব্যক্তিকে ছয় মাসের কা’রাদ’ণ্ড অথবা ১০ হাজার রিয়াল জরি’মানা করা হবে।

 

পাবলিক হাইজিন সম্পর্কিত ২ নং অনুচ্ছে’দে ২০১৭ সালের ১৮ নং আইন অনুযায়ী কাতারে পাবলিক প্লেস, রাস্তা, করিডোর, গলি, ফুটপাত, বাগান, পাবলিক পার্ক, সমুদ্র সৈকত, খালি জমি, ছাদ, দেয়াল, ব্যালকনি, স্কাইলাইট অথবা যেকোন স্কয়ারে ময়লা করা বা ময়লা অপসারণ নি’ষি’দ্ধ।

 

কাতারের বাড়িঘর, ভবন, ভবনগুলোর পার্কিং, ভবনগুলোর সংল’গ্ন ফুটপাতের ক্ষে’ত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। ভবনগুলো সরকারি হোক বা বেসরকারি, পাবলিক হাইজিন সম্পর্কিত আইন ল’ঙ্ঘন করলে শা’স্তি পেতেই হবে।

 

২ নং অনুচ্ছে’দে এছাড়াও বলা হয়েছে, কাতারে যেকোন পাবলিক প্লেস, স্কয়ার, রাস্তা, গলি, ফুটপাত, যেকোন পার্ক ও সমুদ্র সৈকতে থুথু ফেলা নি’ষি’দ্ধ। কেউ যদি কাতারের এই আইনগুলো লঙ্ঘ’ন করে তাকে ১০ হাজার রিয়াল ও ছয় মাসের কা’রাদণ্ড দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.