এএফসি অনূর্ধ্ব-২০ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইয়ে এবার বাংলাদেশের সামনে কাতার বা’ধা। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিকে হা’রাতে পারলেই মূল পর্বের পথে আরও একধাপ এগিয়ে যাবে রাশেদ মাহমুদের শীষ্যরা।

 

কাতার শ’ক্ত প্রতিপক্ষ হলেও আ’ত্মবিশ্বা’সী নোভারা। ম্যাচে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঠে এসে সম’র্থন যোগানোর অনুরো’ধ করেছেন তারা। বাহরাইনের শেখ আলী বিন মোহাম্মদ আল খলিফা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টায়।

 

১৯ আগস্ট ২০১৮ ইন্দোনেশিয়ার বেকাসির প্যাট্রিয়ট চন্দ্রভাগা স্টেডিয়াম। দেশের ফুটবল ইতিহাসের স’ঙ্গে জড়িয়ে আছে মধুর স্মৃতি। চন্দ্রভাগায় পুরো জাতিকে আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়ার আনন্দে ভাসিয়েছিল জামাল ভূঁইয়ারা।

 

শক্তিশালী কাতারকে এশিয়ান গেমসে হা’রিয়ে ইতিহাস গড়ে অনূর্ধ্ব- ২৩ ফুটবল দল। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির বিপ’ক্ষে সেটিই ছিল একমাত্র সাফল্য। সময় গ’ড়িয়েছে। সে সাফল্য ছা’ড়িয়ে যেতে পারেনি অন্যরা।

 

চার বছর পর আবারও সুযোগ এসেছে যুবাদের সামনে। এবার এএফসি কাপের বাছাইপর্বে অনূর্ধ্ব-২০ দলের সামনে কাতার বা’ধা। পারবে তো রাশেদ মাহমুদ পা’প্পুর শীষ্যরা! দেশের বাইরে বয়সভি’ত্তিক দলগুলোর সাম্প্রতিক পারফরমেন্স পাহাড়ের চূড়ায় ওঠার আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে তানভীরদের।

 

বয়সভি’ত্তিক এই দলইটাই গেল মাসে সাফ অনূর্ধ্ব- ২০ চ্যাম্পিয়নশিপে দুর্দান্ত পারফর্ম করেও ভারতের কাছে শেষ পর্যন্ত পেরে ওঠেনি। নেপালে দা’পট দেখাচ্ছে নারীদের সিনিয়র দল।

 

পিয়াস নোভারাও আজ স্বপ্নবাজ। প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী বাহরাইনকে রুখে দিয়ে তাদের আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে কয়েকগুণ। পরের ম্যাচেই ড্রা’গনের দেশ ভুটানকে ২-১ গোলে হারায় নোভারা। গ্রুপ বি’তে দুই ম্যাচ শেষে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে কাতার। এক জয় আর এক ড্রয়ে চার পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব- ২০ দল।

 

এ ম্যাচে জিতলে মূল পর্বের পথে আরও একধা’প এগিয়ে যাবে পাপ্পুর শীষ্যরা। শক্ত প্রতিপ’ক্ষ। কাতার ভয় জ’য় করাই লক্ষ্য নোভাদের। বাহরাইনের কন্ডিশনও এখন অনেকটাই চেনা হয়ে গেছে বাংলাদেশের। ম্যানেজার বিজন বড়ুয়া বলেন, আমাদের ছেলেদের কাতারকে হা’রানোর সক্ষ’মতা আছে।

 

ছেরেদেরকে আমি আগেও বলেছি যে আমরা যদি পদ্মা সেতু করতে পারি, তবে কাতারকে আমরা হা’রাতে পারবো না কেন! কোচ রাশেদ মাহমুদ পাপ্পু বলেন, আমি আশাবাদী। ছেলে পরিশ্রম করতে পারলে ভালো কিছু হবে।

 

অধিনায়ক তানভীর বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা নিজেদের প্রত্যাশা অনুযায়ী খেলতে পেরেছি। এই ম্যাচে যদি আমরা ভালো কিছু করতে পারি, তবে আমাদের ভালো একটা সুযোগ তৈরি হবে। প্রতিপক্ষ কাতার নিজেরদের প্রথম ম্যাচে নেপালকে ৩-১ গোলে। পরের ম্যাচে ভুটানকে ৬-০ গোলে বিধ্ব’স্ত করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.