সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) ফুজাইরায় ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে সৃষ্ট বন্যার পানিতে ডুবে এস এম সাজ্জাদ (৩৬) নামে এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফুজাইরা প্রবাসী সাজ্জাদের চাচাতো ভাই শাওন চৌধুরী। সাজ্জাদ আল–হেইল সানাইয়ায় একটি গাড়ির গ্যারেজে কাজ করতেন। তিনি চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামের মরহুম ফরিদ আহম্মদের ছোট ছেলে। গত মাসে তিনি তার স্ত্রীকে আমিরাতে নিয়ে যান।

ইউএই পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার (২৭ জুলাই) দিনগত রাতে গাড়িতে করে ফুজাইরার সিকমকম থেকে আল-হেইল শহরের নিজ বাসায় ফিরছিলেন সাজ্জাদ।পানির স্রোত বেশি হওয়ায় বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) ভোর ৪টার দিকে গাড়ি থেকে নেমে হাঁটার চেষ্টা করলে পানির তীব্র স্রোতে ভেসে যান তিনি। পরে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে তার ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

সাজ্জাদের লাশ ফুজাইরার একটি হাসপাতালে রাখা হয়েছে। আইনী প্রক্রিয়া শেষে লাশটি দেশে পাঠানো হবে ।এর আগে, আরব আমিরাতের বেশকিছু উপত্যকা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। দেশটির আবহাওয়া অফিসের তথ্য বলছে, দেশটিতে এবার যে পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে তা গত ২৭ বছরের রেকর্ড ভেঙেছে।

ভারি বর্ষণের ফলে ফুজাইরার সঙ্গে অন্যান্য প্রদেশের বাস যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। ফুজাইরা ছাড়া শারজাহ, রাস আল খাইমার অনেক অংশ পানিতে তলিয়ে গেছে।শারজাহর কালবা এলাকায় অনেক বাংলাদেশি প্রবাসীর বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান এখনো পানির নিচে রয়েছে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.